A jug fills drop by drop.

— Buddha

মায়ার বাঁধন

পর্বঃ ৩

লেখিকাঃ Jamila Akter Sompa

” মি.জিয়ান চৌধুরীর অফিসে পৌছে দিল ড্রাইভার কিন্তু আমি ভয় পাচ্ছি সেদিনের প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য আবার উল্টাপাল্টা কিছু করবে নাতো যদি অফিসের লোকজনের সামনে আমাকে অপদস্থ করে।
নিজের কপালে নিজেই বারি মারলাম,কি করতে যে অভদ্রোচিত লোকের সাথে লাগতে গেলাম। নিজের কপালে নিজেই বিপদকে স্বাগত জানিয়েছি কি করা যেহেতু কাজ করে ফেলেছি সেহেতু আমাকেই হ্যান্ডেল করতে হবে।

“”আল্লাহর নাম নিয়ে অফিসের মধ্যে প্রবেশ করলাম,একজন স্টাফকে জিঙ্গাসা করলাম,, “”” ভাইয়া আমাকে একটু হেল্প করবেন মি.জিয়ান চৌধুরীর কেবিন কোনটা একটু যদি বলে দিতেন,,

“” লোকটি বলল ম্যাডাম স্যার অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়া দেখা করে না, আপনার কি অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেওয়া আছে?

না অ্যাপয়েন্টমেন্ট তো নেওয়া নায়, আপনি ওনাকে গিয়ে বলুন রোমানা গ্রুপ থেকে একজন মানুষ এসেছে ফাইল নিয়ে তাহলে হয়তো কাজ হবে।

“ওকে ম্যাডাম আপনি বসুন আমি স্যারের পারমিশন নিয়ে আসি স্যার কি বলে।

“”নিশ্চয়ই আপনি যান আমি এখানেই ওয়েট করছি””।

লোকটি চলে গেল,আমি ইচ্ছা মতো ঝুরছি তাকে “”ওনার সাথে দেখা করার জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে! নিকুচি করেছে অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেওয়ার,, আসলে আমি তাকে ঠিক বলেছি অভদ্রোচিত মানুষ একটা।

লোকটি বললো,,”””ম্যাডাম আপনাকে স্যার ভিতরে যেতে বলেছে আপনি যেতে পারেন।আমি আপনাকে পৌছেদিচ্ছি ;

“না না আপনি আমাকে বলে দেন আমি চলে যেতে পারবো।

তিন তলায় ডান পাশে ঢুকতে স্যারের নাম লেখা আছে কেবিনে।

“”ধন্যবাদ ভাইয়া”””

আসতে আসতে তিন তলায় পৌছে গেলাম,,,,নাম লেখা আছে মি.জিয়ান চৌধুরী।

মে আই কামিং!

ইয়েস কামিং!

“””””ওহ আপনি এসেছেন প্লিজ বসুন।

ফাইল টা নেন আর সাইন করে দেন,, আমাকে আবার যেতে হবে।

“”এতো তাড়া কেন? বসতে বলছি না বসুন।আর আপনি আমার অফিসে আজকে প্রথম এসেছেন আপনাকে কিছু না খাইয়ে কীভাবে যেতে দিই বলুন।

আমি কিছু খাব না প্লিজ ফাইল টাই সাইন করে দেন,আমি চলে যায়।

“”তা বললে তো চলবে না;

আজব তো! আমি খাবনা বলছি তো তাও আমাকে জোর করছেন কেন?আর আমি আপনার অফিসের কর্মচারী না;না আপনি আমার বস; আপনার কথা শুনতে বাধ্য না আমি।

“বাধ্য কি না সেটা তো পরে বোঝা যাবে ;আপনাদের কোম্পানির সাথে যে ডিল টা করেছি সেটা আপনার বসকে ফোন করে জানিয়ে দিই আমরা সে ডিলটা কানসেল করে দিলাম,তার জন্য রেসপন্সিবিলিটি শুধু আপনি।আপনার ব্যবহার আমাদের বাধ্য করেছে এই ডিলটা কানসেল করতে।তারপর কি হবে মিস্ সম্পা?

আপনি শুধু অভদ্র না,একটা খারাপ মানুষ।এভাবে একটা মেয়েকে ব্লাক মেইল করছেন।

“””হুমমম করছি।।

আপনি যেমন আপনার সাথে এর চেয়ে আর ভদ্র ভাবে কথা বলা যায় না বিশ্বাস করুন।

কি বলতে চাইছেন?

“””আমি আপনাকে ভদ্রতার সহিত বললাম বসতে,কিছু খেতে আর আপনি কি বললেন?আসলে আপনার কি দোষ বলেন,, মিডিল ক্লাশ মেন্টালেটির মানুষদের একটু মাথায় তুললে যা অবস্থা হয় আর কি?মিডিল ক্লাশ মেন্টালেটির লোকদের কোনো সুযোগ দিতে হয়না নাতো তারা মাথায় চড়ে বসে।যতসব মিডিল ক্লাশ মেন্টালেটি।

মি. জিয়ান চৌধুরী একটু ভেবে কথা বলবেন।টাকা পয়সা আছে বলে মানুষকে এতোটা ছোট ভাববেন না।আমরা পরিশ্রম করে খায়। কাউরের দয়া আমরা চায়না।আর মিডিল ক্লাশ মানুষজন আছে বলেই আপনাদের এতো বড় কোম্পানি চলছে নাতো কবেই কোম্পানি বন্ধ হয়ে যেতো।

“”” হাও ডেয়ার ইউ””আপনার সাহস হয় কীভাবে আমাকে অপমান করার,, আপনি জানেন আমি আপনার কি করতে পারি! আপনার সারাজীবন হেল করতে আমার এক মিনিট ও লাগবে না।

তা ছাড়া আপনি আর কি করতে পারেন।মানুষের ক্ষতি ছাড়া। আর মানুষের ক্ষতি না করে উপকার করার চেষ্টা করুন দেখবেন আপনার আত্মা পরিশুদ্ধ হবে।প্লিজ সাইন টা করে দিন আমি চলে যাবো।

“””সাইন টা করছি শুধু মাএ মতিউর আংকেল এর জন্য।”

“” ফাইলটা আমার দিকে ছুড়ে মারলো,,আমি ও ধরে নিলাম “”।

“””ধন্যবাদ “””।বলে এক মূহুর্ত্যে সময় নষ্ট করলাম না সাথে সাথে বেরিয়ে চলে আসলাম।

“””” জিয়ান মনে মনে ভাবছে আমি আপনাকে এতো সহজেই ছাড়ছিনা। আমি সাইন টা করলাম শুধূ আপনাকে জব্দ করার জন্য।আপনাকে হাতের কাছে পাওয়ার জন্যই।ওয়েট অ্যান্ড সি। জিয়ান চৌধুরীর অফিসে এসে তাকেই অপমান করা।

অফিস থেকে বের হবার পর আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করলাম।মনে হলো এতোক্ষণ রাক্ষসপুরি তে ছিলাম আর রাক্ষসের সাথে যুদ্ধ করছিলাম।।।

চলবে……..

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply