সাহস আর সুযোগের অভাবই চরিত্র ।

— বার্নার্ড শ

বিজয় দিবসের সার্থকতা

আজ ১৬ই ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস, বাঙালির জাতীয় জীবনের এক উজ্জ্বল দিন। বাংলাদেশের ইতিহাসের অন্যতম তাৎপর্যময় এই দিনে বাংলাদেশ প্রত্যক্ষ করেছে মুক্তি সংগ্রামের বিজয়কে, স্বদেশভূমিতে আত্নপ্রতিষ্ঠা করেছে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের। এই বিজয়ের মাধ্যমেই আমাদের জাতীয় জীবনের এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা হয়, আমরা বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃত অর্জন করতে শুরু করি এবং বিশ্বের মানচিত্রে এক মর্যাদাপূর্ণ স্থান পাই। মুক্তিযুদ্ধের বিজয় শুধুমাত্র একটি জাতীয় পতাকা আর স্বাধীন ভূখন্ডের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়, বরং এর তাৎপর্য সুবিশাল ও সুদূরপ্রসারী। ১৯৭১ সালে আমরা প্রতিকূল ও অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম করে বিজয় ছিনিয়ে এনেছিলাম। প্রতিটি বিজয় দিবসে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বুকে ধরে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। প্রগতি ও পরিবর্তনের ধারায় অগ্রসর হয়ে আমাদের শ্রেষ্ঠ সম্পদ স্বাধীনতাকে আমাদের জীবনে অর্থবহ করে তোলাতেই এই বিজয় দিবসের প্রকৃত সার্থকতা নিহিত।

  • অর্ণব, শিক্ষার্থী, ইংরেজি বিভাগ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়
What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply