অপরকে ঘৃণার চোখে উপহাস করিও না, যেহেতু তাহারা তোমাদের অপেক্ষা ভাল হইতে পারে৷ অপরের ত্রুটি অনুসন্ধান করিও না, এবং একজনের অসাক্ষাতে নিন্দা করিও না৷ আল্লাহকে ভয় কর, যেহেতু আল্লাহ দয়ালু ও ক্ষমাকারী ৷ – 49/11/12

— আল কোরআন

অবতারবাদ

অবতার সম্পর্কে যুক্তিনির্ভর চিন্তাভাবনাকে বলে অবতারবাদ। ঈশ্বর মাঝে মাঝে দেহধারণ করে
পৃথিবীতে অবতাররূপে এসে থাকেন। ক্ষিতি, অপ, তেজ, মরুৎ ও বোম-এই পঞ্চভ‚তে গড়া
জগতকে বলা হয় প্রপঞ্চ। আর যা পঞ্চভ‚তে গড়া নয় সেটি হল অপ্রপঞ্চ। ঈশ্বর অপ্রপঞ্চ থেকে
যখন প্রপঞ্চে- অবতরণ করেন তখন তাঁকে বলা হয় অবতার। ঈশ্বর ইচ্ছাময়। ইচ্ছা করলেই যে
কোন স্থানের যে কোন সময়ে অবতাররূপে আসতে পারেন। তবে তাঁর অবতাররূপে আসার কিছু
কারণ গীতায় প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে যখন ধর্মের গøানি দেখা দেয়, অধর্মের
প্রতাপ বেড়ে যায়, সমাজে সৎ ব্যক্তিদের ওপর নির্যাতন নেমে আসে তখন ভগবান অবতাররূপে
পৃথিবীতে এসে থাকেন। এসে তিনি দুষ্টের বিনাশ, শিষ্টের পালন এবং ধর্মসংস্থাপন করে থাকেন।

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply