Every human being is the author of his own health or disease.

— Buddha

হেরে গেলাম আজ

মাঝে মাঝে আমারো ইচ্ছে হয়
হেরে যাই আমিও
ইচ্ছে করেই হেরে যাই,চুপ করে আমি ও দূর কোথায় হারাই।
আমারও ইচ্ছে জাগে
মন খুলে হাসার,নিজের মতো বাঁচার
কিন্তু আমি আবার হেরে যাই।
কখনো নিজের কাছে,কখনো পরিস্থিতির কাছে।

কেন?
রাস্তায় মন খুলে হাটবো
রাত,দিন,দুপুর নীল সারি পড়ে
বিলাসিতার ডানা মেলে।
হাসির কণ্ঠে জোনাকির আলোয় রাঙা হবে চেহারা আমার,
আমার চায়ের চুমুকে মাঝ পথের কোণে আড্ডার বাহার জমে উঠবে,
হবে খোলা চুলে আমার হাজারো পথের পাড়ি দেওয়া,
হবে নিজের রাজ্যে নিজ বাঁশির সুর তোলা।
কিন্তু আমি এবারও যে হেরে যাই!

একাকির ভয়, থাকবে না কাপুরুষের কুনজরের আভাস
মানের ভয়,সম্মানে ভয়,না থাকবে বয়স পেরিয়ে বিয়ের সংশয়।
আমায় জানবে বিশ্ব, চিনবে সমাজ,কারো অনুপ্রেরণা হবো আমি আজ।
কিন্তু আমি বারেবারেই হেরে যাই!
এই কেমন বাঁধা,কেমন পরিহাস
মেয়ে বলেই কী আজ আমার সপ্নপূরির এই সর্বনাশ!
ধর্ম বলে মেয়ে রূপ মায়ের পায়ের তলে জান্নাতের বসবাস
বাবার কুলে মেয়ে হলো মঙ্গলের পূর্বাবাস।
তাকায়ে দেখি জগত ঘুরে সর্বখানে
মেয়ে মানুষ সকল নিয়ম,সকল আধার গায়ে নেয় তুলে,
চুপ থাকা ওদের সভ্যতার পরিচয় নেয় ধরে,
তবে মন কেন আজ ইহা মানতে নারাজ!
কেন বলে?
দেখো সর্বক্ষণে তুমি হেরে গেলে আজ।

আমি চলি পাল্টাবো রিতি,
এগুতে এগুতে ফেলি পদে পদে দীর্ঘশ্বাস!
আমি গড়বো সেই সমাজ
যেখানে নারীর হবে স্বাধীনতার সাথে বসবাস।
তবুও নিম্ন মানসিতার ভিড়ে, হাজারো ঝংকারে
শব্দ আসে,
এসেছো বদলাতে!
আবারো,
মেয়ে তুমি হেরে গেলে আজ।

কলমেঃশাহনাজ রহমান প্রমি

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply