অপরকে ঘৃণার চোখে উপহাস করিও না, যেহেতু তাহারা তোমাদের অপেক্ষা ভাল হইতে পারে৷ অপরের ত্রুটি অনুসন্ধান করিও না, এবং একজনের অসাক্ষাতে নিন্দা করিও না৷ আল্লাহকে ভয় কর, যেহেতু আল্লাহ দয়ালু ও ক্ষমাকারী ৷ – 49/11/12

— আল কোরআন

বাংলা পরীক্ষার সকল প্রশ্ন উত্তর সহ দিয়ে

১। বড়ু চণ্ডীদাসের কাব্যের নাম কী?
[১০, ১৫,
২০, ২২, ৩৩ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ শ্রীকৃষ্ণকীর্তন।
২। কাহ্নপা কে ছিলেন? [১০, ১২
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ কাহ্নপা চর্যাপদের একজন
প্রধান
কবি। তাঁর রচিত পদের সংখ্যা ১৩ টি।
৩। বাংলা ভাষার পূর্ববর্তী স্থরের
নাম কী?
[১০ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ অপভ্রংশ।
৪। দৌলত উজির বাহরাম খানের
কাব্যের নাম
কী? [১০, ১৫ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ লাইলী – মজনু।
৫। ’ইউসুফ – জোলেখা’ কাব্যের
রচয়িতা কে?
[১০, ১৫ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ শাহ মুহাম্মদ সগীর।
৬। আলাওলের শ্রেষ্ঠ কাব্যের নাম কী?
[১০
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ পদ্মাবতী।
৭। লালন শাহ কী রচনা করেছেন? [১০
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ লালনগীতি (বাউলগান)।
৮। মধুসূদন দত্তের মহাকাব্যের নাম কী?
[১০
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মেঘনাদবধ কাব্য।
৯। রবীন্দ্রনাথের ‘বলাকা’ কাব্য প্রথম
কোন
সালে প্রকাশিত হয়? [১০ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ১৯১৬ খ্রিষ্টাব্দে বাংলা
১৩২২
সালে।
১০। কাজী নজরুল ইসলামের ‘বিদ্রোহী’
কবিতা কোন কাব্যের অন্তর্গত? [১০
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ’অগ্নিবীনা’ (১৯২২)।
১১। ’ধূসর পাণ্ডলিপি’ কার রচনা? [১০
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ জীবনানন্দ দাস।
১২। ‘লালসালু’র লেখক কে? [১০ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ।
১৩। জহির রায়হানের জনপ্রিয় উপন্যাস
কোনটি? [১০ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ আরেক ফাল্গুন।
১৪। প্রথম কোন মহিলা কবি রামায়ণ
রচনা
করেন? [১১ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ চন্দ্রাবতী।
১৫। ‘অন্নদামঙ্গল’ কার রচনা? [১১, ২০
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ভারতচন্দ্র রায় গুণাকর।
১৫। ‘গোরক্ষ বিজয়’ এর আদি কবির নাম
কী?
[১১ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ শেখ ফয়জুল্লাহ।
১৬। ‘মধুমালতী’ কাব্যের অনুবাদক কে?
[১১
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মুহম্মদ কবীর।
১৭। ’মধুমালতী’ কাব্য কোন ভাষা
থেকে
অনূদিত হয়েছে? [১১ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ হিন্দি।
১৮। ঈশ্বরগুপ্ত সম্পাদিত পত্রিকার নাম
কী?
[১১, ১৩ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ’সংবাদ প্রভাকর’ (১৮৩১)।
১৯। ‘প্রফুল্ল’ নাটকটি কে রচনা
করেছেন? [১১
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ গিরশিচন্দ্র ঘোষ।
২০। ’কল্লোল’ পত্রিকা কোন সালে
প্রকাশিত
হয়? [১১ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ১৯২৩ সালে।
২১। ‘আরণ্যক’ উপন্যাসের রচয়িতার নাম
কী?
[১১ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়।
২২। আত্মজীবনীমূলক রচনা ‘উদাসীন
পথিকের
মনের কথা’র লেখক কে?[১১, ৩১ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ মীর মোশাররফ হোসেন।
২৩। আহসান হাবীবের প্রথম কাব্যগ্রন্থ
কোনটি? [১১ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘রাত্রিশেষ’।
২৪। ‘নেমেসিস’ নাটকটির রচয়িতা
কে? [১১
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ নূরুল মোমেন।
২৫। ‘নদীবক্ষে’ কার রচনা? [১১ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ কাজী আব্দুল ওয়াদুদ।
২৬। ‘সমকাল’ পত্রিকার প্রথম সম্পাদকের
নাম
কী? [১১, ২১ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃসিকান্দার আবু জাফর।
২৭। ‘অমর একুশে’ এর কবির নাম কী? [১১
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ আলাউদ্দীন আল আজাদ।
২৮। ’ধনধ্যান্যে পুষ্পেভরা আমাদের এই
বসুন্ধরা’ এই লাইনাটর রচয়িতা কে? [১৩
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ দ্বিজেন্দ্রলাল রায়।
২৯। জয়দেব রচিত সংস্কৃত কাব্যেগ্রন্থের
নাম
কী? [১৩ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ গীতগোবিন্দ।
৩০। আলাওলের ‘পদ্মাবতী’ কোন কবি
অনুবাদ
করেন? কোন কাব্যে থেকে? [১৩
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ মালিক মুহম্মদ জায়সীর।
’পদুমাবৎ’
কাব্য থেকে।
৩১। ভারতচন্দ্র কোন রাজসভার কবি
ছিলেন?
[১৩ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মহারাজ কৃষ্ণচন্দ্র রায়ের
রাজসভার
কবি।
৩২। ফকির গরীবুল্লাহ রচিত দু’টি
গ্রন্থের নাম
কী কী? [১৩ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘আমির হামজা’(১ম অংশ) ও
জঙ্গনামা।
৩৩। মুসলমান সম্পাদকের সম্পাদনায় প্রথম
কোন পত্রিকা সম্পাদিত হয়? [১৩
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ‘সমাচার সভারাজেন্দ্র (১৮৩১),
সম্পাদক- শেখ আলীমুল্লাহ।
৩৪। ’সধবার একাদশী’ প্রহসনটি কার
লেখা?
[১৩ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ দীনবন্ধু মিত্র।
৩৫। শেক্সপীয়রের কোন নাটকটি
বিদ্যাসাগর
অনুবাদ করেন? [১৩, ২৫ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ’কমেডি অব এররস’। অনূদিত নাম :
‘ভ্রান্তি বিলাস’।
৩৬। ’নৌফেল ও হাতেম’ কাব্যনাট্যটির
রচয়িতার নাম কী? [১৩ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃফররুখ আহমদ।
৩৭। ‘চাঁদের আমাবস্যা’ উপন্যাসটির
রচয়িতা
কে? [১৩ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ।
৩৮। বাংলাদেশের দু’জন অকালপ্রয়ত
বিশিষ্ট
কবির নাম কী কী? [১৩ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ও হুমায়ুন
কবির।
৩৯। ‘সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপর
নাই’
এটি কোন কবির বাণী? [১৫ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ দ্বিজ চণ্ডীদাসের।
৪০। কৃত্তিবাস কোন কাব্যের জন্য
বিখ্যাত?
[১৫ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ রামায়ণের অনুবাদের জন্য
বিখ্যাত।
৪১। বিজয়গুপ্ত কোন কাব্যের রচয়িতা?
[১৫
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মনসামঙ্গল কাব্য (১৪৯৪)।
৪২। বিজয়গুপ্ত কোথায় জন্মগ্রহন করেন?
[১৫
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বরিশালের গৈলা নামক
গ্রামে।
৪৩। বাংলা ভাষায় প্রথম ব্যাকরণবিদ
কে?
[১৫ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মানোএল দা আস্সুম্পসাওঁ।
পর্তুগালের
এক পাদ্রি।
৪৪। বাংলা গদ্যের জনক কে? [১৫
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।
৪৫। কারবালার কাহিনী নিয়ে কে
গ্রন্থ
রচনা করেন? [১৫ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মীর মশাররফ হোসেন। ’বিষাদ
সিন্ধু’।
৪৬। ‘কৃষ্ণকুমারী’ নাটকের রচয়িতা কে?
[১৫
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মাইকেল মধসূদন দত্ত। এটি
বাংলা
সাহিত্যের প্রথম সার্থক ট্রাজেডি।
৪৭। ‘কুহেলিকা’ উপন্যাসটির রচয়িতা
কে? [১৫
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃকাজী নজরুল ইসলাম।
৪৮। বাংলাদেশের সাহিত্যে (১৯৪৭-
বর্তমান)
প্রথম উল্লেখযোগ্য উপন্যাস কোনটি? [১৫
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘লালসালু’। রচয়িতা সৈয়দ
ওয়ালিউল্লাহ।
৪৯। ‘কবর’ নাটকটি কোন ঐতিহাসিক
ঘটনা
নিয়ে রচিত? নাট্যকার কে [১৫,২০,২৩,২৭
তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ভাষা আন্দোলন। নাট্যকার
মুনীর
চৌধুরী।
৫০। একুশের প্রথম সংকলন এবং
‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ :
দলিলপত্র’
কে রচনা করেন? [১৫ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ হাসান হাফিজুর রহমান।
৫১। বাংলা কাব্যের আদি নিদর্শন কী?
[১৭,
২০, ২১, ২৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘চর্যাপদ’।
৫২। ‘চণ্ডীমঙ্গল কাব্যের রচয়িতা কে?
[১৭
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মুকুন্দরাম চক্রবর্তী। (রচনাকাল
ষোড়শ শতক)।
৫৩। মনসুর বয়াতি কে? তার রচিত
কাব্যের
নাম কী? [১৭ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মৈমনসিংহ গীতিকার অন্যতম
কবি।
রচিত কাব্য ’দেওয়ানা মদিনা’।
৫৪। ‘যুগসন্ধির কবি কাকে বলে? [১৭, ৩১
তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তকে।
৫৫। মধ্যযুগের কোন কাব্য প্রথমে এক কবি
শুরু
করেন পরে অন্য এক কবি শেষ করেন? [১৭
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ’সতীময়না-লোচন্দ্রানী’।
(দৌলত
কাজী শুরু করেন আলাওল শেষ করেন)।
৫৬। ’তোহফা’ ক্ব্যটি কে রচনা করেন?[১৭
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ আলাওল। ফরাসি ভাসা থেকে
অনূদিত।
৫৭। ‘প্রাচীন বঙ্গ সাহিত্যে
মুসলমানদের
অবদান’ গ্রন্থের রচয়িতা কে? [১৭
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ।
৫৮। ’ভানুসিংহ’ কার ছদ্মনাম? [১৭
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের।
৫৯। ফররুখ আহমদ রচিত সনেট গ্রন্থের নাম
কী? [১৭ বিসিএস লিখিত]
উত্তর ‘মহূর্তের কবিতা’ (১৯৬৩)।
৬০। প্রাচীন যুগে রচিত বাংলা
সাহিত্যের
নিদর্শন কোন কোন নামে পরিচিত? [১৭
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘চর্যাচর্যবিনিশ্চয়’,’চর্যাগীতি
কোষ’,
‘চর্যাগীতিকা’, ’চর্যাপদ’, হাজার
বছরের
পুরান বাঙ্গালা ভাষার বৌদ্ধ গান ও
দোহা’
ইত্যাদি।
৬১। ‘ইউসুফ-জোলেখা’ ও ‘লাইলী-মজনু’
কাব্যের উপাখ্যানসমূহ কোন দেশের?
[১৭
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ’ইউসুফ-জোলেখা’ আরবের,
’লাইলী-
মজন’ ইরান।
৬২। ’রামায়ণ’ ও ’মহাভারত’ কাব্যের মূল
রচয়িতাদের নাম কী? [১৭ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ রামায়ণের রচয়িতা
বাল্মীকি এবং
মহাভারতের রচয়িতা কৃষ্ণ দ্বৈপায়ন
ব্যাস।
৬৩। ১৯৪৮ থেকে ১৯৫২ এর মধ্যে বাংলা
ভাষা
আন্দোলনের উপর কোন গ্রন্থ রচিত হয়?
[১৭
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘পূর্ব বাংলার ভাষা
আন্দোলন ও
তৎকালীন রাজনীতি’। গ্রন্থকারঃ
বদরুদ্দীন
ওমর।
৬৪। কবিগান বলতে কী বোঝায়? [১৮
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ কবিতা বা গানের বিতর্ক।
৬৫। কবি গোলাম মোস্তফার তিনটি
গ্রন্থের
নাম কী কী? [১৮ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘বিশ্বনবী’, ’রক্তরাগ’ ও
‘মরুদুলাল’।
৬৬। ঈশ্বরচন্দ্রের বিধবা বিবাহ বিষয়ক
গ্রন্থটির নাম কী? [১৮ বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ‘বিধবা বিবাহ প্রচলিত হওয়া
উচিত
কিনা এতদ্বিষয়ক প্রস্তাব’।
৬৭। ‘কাশবনের কন্যা’ উপন্যাসটির
রচয়িতা
কে? [১৮ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ শামসুদ্দীন আবুল কালাম।
৬৮। বাংলা কথ্যরীতিতে প্রথম গ্রন্থ
রচনা
করেন কে? [১৮ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ প্যারীচাঁদ মিত্র ওরফে
টেকচাঁদ
ঠাকুর। গ্রন্থের নাম : ‘আলালের ঘরের
দুলাল’।
৬৯। ফোর্ট উইলিয়াম কলেজ কখন
প্রতিষ্ঠিত
হয়? [১৮ বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ১৮ মে ১৮০০ খ্রিষ্টাব্দে।
৭০। ’তাপস কাহিনী’ ও ‘মহর্ষি মনসুর’
প্রভৃতি
গ্রন্থের রচয়িতার নাম কী? [১৮
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ মোজাম্মেল হক।
৭১। জীবনানন্দ দাসের তিনটি
কাব্যগ্রন্থের
নাম কী কী? [২০, ২২ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ঝরা পালক, ধূসর পাণ্ডুলিপি ও
বনলতা
সেন।
৭২। ’হাজার বছর ধরে’ উপন্যাসটির
রচয়িতার
নাম কী? [২০ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ জহির রায়হান।
৭৩। মৈমনসিংহ গীতিকার দু’টি পালা
কী
কী? [২০ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মহুয়া ও মলুয়া।
৭৪। রবীন্দ্রনাথের প্রথম ঐতিহাসিক
উপন্যাস
কোনটি? [২০ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘বৌ-ঠাকুরাণীর হাট’।
৭৫। তিনজন বৈষ্ণব পদকর্তার নাম কী
কী? [২১
তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বিদ্যাপতি, চণ্ডীদাস ও
গোবিন্দদাস।
৭৬। রবীন্দ্রনাথের নোবেল
পুরস্কারপ্রাপ্ত
গ্রন্থের নাম কী? [২১ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ‘Song Offerings’ কবিতা
সংকলনরে
জন্য।
৭৭। কাজী নজরুল ইসলামের তিনটি
কাব্যের
নাম কী কী? [২১ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ‘অগ্নিবীনা’, ’চক্রবাক’ ও ‘সিন্দু
হিন্দোল’।
৭৮। মুনীর চৌধুরীর ‘রক্তাক্ত প্রান্তর’
নাটকের বিষয়বস্তু কী? [২১ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধ।
৭৯। ইংরেজ আমলে কাজী নজরুলের
নিষিদ্ধ
গ্রন্থগুলোর নাম কী কী? [২২, ২৪ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ বিষের বাঁশি, প্রলয় শিখা,
ভাঙ্গার
গান, যুগবানী ও চন্দ্রবিন্দু।
৮০। দৌলত কাজী কোন কাব্যের জন্য
বিখ্যাত? [২২ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ সতীময়না ও লোর চন্দ্রানী।
৮১। চরিত্রহীন উপন্যাস কার লেখা? [২২
তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের।
৮২। শামসুর রহমানের প্রথম কাব্যের নাম
কী?
[২২ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ প্রথম গান, দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে।
৮৩। ‘একুশে ফেব্রুয়ারি’ সংকলনের
সম্পাদক
কে? [২২, ২৩ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ হাসান হাফিজুর রহমান।
৮৪। ‘মোহাম্মদী’, ‘সওগাত’ ও ’বেগম’
পত্রিকার
সম্পাদক কে কে? [২২ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ যথাক্রমে মাওলানা আকরাম
খাঁ,
মোহাম্মদ নাসিরউদ্দীন ও নূরজাহান
বেগম।
৮৫। পবিত্র কুরআন শরীফের প্রথম বাংলা
অনুবাদকের নাম কী? [২২ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ভাই গিরিশচন্দ্র সেন।
৮৬। বাংলা কোন ভাষাগোষ্ঠীর
অন্তর্গত?
[২৩ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ইন্দো- ইউরোপীয়।
৮৭। কাব্য পারা কে লিখেছেন? [২৩ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ কাজী নজরুল ইসলাম।
৮৮। রবীন্দ্রনাথের সর্বশেষ কাব্যের
নাম কী?
[২৩ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ শেষ লেখা।
৮৯। কাজী নজরুল ইসলামের
ছোটগল্পের
বইয়ের নাম কী? [২৩ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ শিউলিমালা।
৯০। জসীমউদ্দীনের ‘সোজান বাদিয়ার
ঘাট’
কাব্যের প্রধান চরিত্র কী কী? [২৩ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ সোজান ও দুলি।
৯১। ‘চাঁদের আমাবস্যা’ কার লেখা? [২৩
তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ।
৯২। ’সংশপ্তক’ কার লেখা? [২৩ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ শহীদুল্লাহ কায়সার।
৯৩। ’কাঞ্চন গ্রাম’ কার লেখা? [২৩ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ শামসুদ্দীন আবুল কালামের।
৯৪। ফোর্ট উইলিয়াম কলেজে কত সালে
বাংলা বিভাগ খোলা হয়? [২৪ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ১৮০১ সালে।
৯৫। ‘লালসালু,’ ‘ সূর্যদীঘল বাড়ী’ ও
’চিলে
কাঠার সেপাই’ কে কে লিখেছেন?
[২৪,২৭ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ যথাক্রমে সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ,
আবু
ইসহাক ও আখতারুজ্জামান ইলিয়াস।
৯৬। বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত
হোসেন কেন
বিখ্যাত? [২৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ নারী জাগরনের অগ্রদূত
হিসেবে।
৯৭। রবীন্দ্রনাথের ‘শেষের কবিতা’ কী
ধরনের গ্রন্থ? [২৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ রোমান্টিক কাব্যধর্মী
উপন্যাস।
৯৮। জসীমউদ্দীনকে কেন ‘পল্লিকবি’
বলা হয়?
[২৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ তাঁর কবিতায় পল্লি-প্রকৃতির
রূপবৈচিত্র ফুটে উঠেছে তাই।
৯৯। ’কল্লোল’ কী? [২৪ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ বাংলা সাহিত্যর পুরোধা-
ব্যাক্তি
দের একটি সংগঠন। এই সংগঠনের মূখপাত্র
ছিলো ’কল্লোল’ নামের একটি
পত্রিকা। এর
সম্পাদক ছিলেন দীনেশরঞ্জন দাস।
১০০। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কত সালে
প্রতিষ্ঠিত হয়? [২৫ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ১৯২১ সালে।
১০১। ‘শ্রীকৃষ্ণকীর্তন’ কাব্যের
আবিষ্কারকের নাম কী? [২৫ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ শ্রী বসন্তরঞ্জন রায়। তাঁর
উপাধি
ছিল ‘বিদ্বদ্বল্লভ’।
১০২। মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যে প্রথম
মুসলিম কবি কে? [২৫ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ শাহ মুহম্মদ সগীর।
১০৩। বৈষ্ণব পদাবলির দু’জন পদকর্তার
নাম
কী কী? [২৫ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বিদ্যাপতি ও জ্ঞানদাস।
১০৪। ‘বেতাল পঞ্চবিংশতি’ কার
লেখা? [২৫
তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের।
১০৫। প্রমথ চৌধুরীর ছদ্মনাম কী? [২৫ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বীরবল।
১০৬। মুনীর চৌধুরীর দু’টি নাটকের নাম
কী
কী? [২৫ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ রক্তাক্ত প্রান্তর ও দণ্ডকারণ্য।
১০৭। ‘অশ্রুমালা’ কাব্যের রচয়িতা কে?
[২৫
তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ কায়কোবাদ। তাঁর আসল নাম
মুহম্মদ
কাজেম আল কোরায়শী।
১০৮। চর্যাপদ কে কখন কোথা থেকে
আবিষ্কার করেন? [২৭, ২৮, ৩৩, ৩৪ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ১৯০৭ সালে ড. হরপ্রসাদ
শাস্ত্রী
নেপালের রাজদরবারের গ্রন্থাগার
থেকে
আবিষ্কার করেন।
১০৯। বাংলা মঙ্গল কাব্যধারার দু‘জন
বিখ্যাত কবির নাম কী কী? [২৭ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ মুকুন্দরাম চক্রবর্তী ও রায়গুণাকর।
১১০। ফোর্ট উইলিয়াম কলেজ কত সালে
স্থাপিত হয়? [২৭, ২৮ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ১৮০০ সালে।
১১১। ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের প্রথম
প্রকাশিত কাব্যের নাম কী? [২৭ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ‘বেতাল পঞ্চবিংশতি’ (১৮৪৭)।
১১২। ‘বিষাদসিন্ধু’ কার লেখা? [২৭ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মীর মশাররফ হোসেন। এটি
প্রকাশিত
হয় ১৮৬৯ সালে।
১১৩। রবীন্দ্রনাথ কত সালে কোন
গ্রন্থের
জন্য নোবেল পুরস্কার পান? [২৭ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ১৯১৩ সালে গীতাঞ্জলীর
ইংরেজি
অনূদিত গ্রন্থ ‘Song Offerings’ এর জন্য।
১১৪। ‘নীল দর্পণ’ নাটকটি কে
লিখেছেন? [২৭
তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ দীনবন্ধু মিত্র। তাঁর বিখ্যাত
প্রহসন
‘বিয়ে পাগলা বুড়ো’।
১১৫। কাজী নজরুলের জন্ম সাল ও মৃত্যু
সাল
কত কত? [২৭ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ জন্ম : ২৫ মে, ১৮৯৯ ইং, ১১ জ্যৈষ্ঠ
১৩০৬ বাং। মৃত্যু : ২৯ আগস্ট ১৯৭৬ ইং, ১২
ভাদ্র
১৩৮৩ বাং
১১৬। ‘অবরোধবসিনী’ কে লিখেছেন?
[২৭ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বেগম রোকেয়া সাখাওয়া
হোসেন।
১১৭। কায়কোবাদের আসল নাম কী?
তাঁর
বিখ্যাত মহাকাব্যের নাম কী? [২৭ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ আসল নাম কাজেম আল
কোরায়শী।
তাঁর বিখ্যাত মহাকাব্য হল ‘মহাশ্মশান’।
১১৮। বাংলাদেশের প্রধান দু’জন কবি
কে
কে? [২৭ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ কবি শামসুর রহমান ও বেগম
সুফিয়া
কামাল।
১১৯। ’মনসা মঙ্গল’ কাব্যের উদ্ভবের
প্রেক্ষপট কী? [২৮ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ দেবী মনসার গুণকীর্কন করা।
১২০। চর্যাপদ কোন ধর্মের? [২৯ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ বৌদ্ধ সহজিয়া ধর্ম।
১২১। বীরবলী গদ্যের শ্রষ্ঠা কে? [২৯ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ প্রমথ চৌধুরী।
১২২। অ্যাবসার্ড নাটক কী [২৯ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ অদ্ভুত, অলীক বা বিদ্রুপাত্মক
নাটক।
১২৩। চর্যাপদের পদকর্তা কতজন? [ ৩০ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ২৪ জন। কাহ্নপা সবচেয়ে বেশি
১৩ টি
পদ রচনা করেছেন।
১২৪। বাংলা সাহিত্যে অন্ধকার যুগ
বলে
কোন সময়কে? [ ৩০ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ১২০০ সাল থেকে ১৩৫০ সাল
পর্যন্ত
সময়কে।
১২৫। সবুজপত্র পত্রিকার সম্পাদক কে?
প্রকাশকাল কত সাল? [ ৩০ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ প্রমথ চৌধুর। প্রকাশকাল ১৯১৪
সাল।
১২৬। ‘ধূসর পাণ্ডুলিপ ‘ কাব্য কে রচনা
করেছেন? [ ৩০ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ জীবনানন্দ দাস।
১২৭। মনসামঙ্গল কাব্যের প্রধান কবি
কে?
[ ৩১ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বিজয় গুপ্ত।
১২৮। ’সান্ধ্য ভাষা’ কাকে বলে? [ ৩২
তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ চর্যাপদের ভাষাকে ‘সান্ধ্য
ভাষা’
বলে।
১২৯। ’পাখির কাছে ফুলের কাছে’ কার
রচনা?
[ ৩২ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ কবি আল মাহমুদ।
১৩০। গ্রিক ট্রাজেডি ‘ইডিপাস’’
বাংলায়
অনুবাদ করেন কে? [ ৩২ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ সৈয়দ আলী আহসান।
১৩১। বাংলা গদ্যের জনক কে? [ ৩৩ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।
১৩২। ’অবসরের গান’ কবিতাটি কে
রচনা
করেছেন? [৩৩ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ জীবনানন্দ দাস।
১৩৩। বাংলা লিপির উৎস কী? [৩৪ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ব্রাহ্মী লিপি।
১৩৪। ’মোসলেম ভারত’ পত্রিকার
সম্পাদক
কে? [৩৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মোজাম্মেল হক (১৯২০)।
১৩৫। ‘চণ্ডীদাস সমস্যা’ কী? [৩৪ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ চণ্ডীদাসের আবির্ভাবের
স্থান ও
কাল নিয়ে মতভেদ।
১৩৬। বাংলা সাহিত্যে ‘ভোরের
পাখি’ কে?
[৩৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ বিহারীলাল চক্রবর্তী।
১৩৭। ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের আসল নাম
কী?
[৩৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ঈশ্বরচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়।
১৩৮। ঈশ্বরচন্দ্র কোন প্রতিষ্ঠান থেকে
‘বিদ্যাসাগর’ উপাধি পান? [৩৪ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ সংস্কৃত কলেজ থেকে।
১৩৯। বঙ্কিমচন্দ্রের ত্রয়ী উপন্যাসের
নাম
কী? [৩৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ ’আনন্দ মঠ’, ’দেবীচৌধুরাণী’ ও
সীতারাম।
১৪০। বাংলাদেশে প্রথম কোথায় প্রথম
ছাপাখানা প্রতিষ্ঠিত হয়? [৩৪ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ ১৮৪৮ সালে রংপুরে প্রথম
ছাপাখানা
যন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়?
১৪১। ’মজলুম আদিব’ কে? [৩৪ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ কবি শামসুর রহমান ‘মজলুম আদিব
বা
বিপন্ন লেখক ছদ্মনামে লিখতেন।
১৪২। ‘পৃথক পলঙ্ক’ গ্রন্থের লেখক কে? [৩৪
তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ আবুল হাসান।
১৪৩। ‘বুদ্ধিবৃত্তির নতুন বিন্যাস’ এর
লেখক
কে? [৩৪ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ আহমদ ছফা।
১৪৪। ব্রজবুলি কী? [৩৬ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ । মৈথিলী ও বাংলা ভাষার
মিশ্রনে
গঠিত কৃত্রিম কবিভাষাকে ব্রজবুলি
বলে।
১৪৫।মুক্তিযুদ্ধ ভিক্তিক উপন্যাসের নাম
কী?
[৩৬ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ জাহান্নাম হইতে বিদায়—
শওকত
ওসমান, রাইফেল রোটি আওরাত—
আনোয়ার
পাশা, এ গোল্ডেন এজ—তাহমিমা
অনাম,
আগুনের পরশমণি—হুমায়ূন আহমেদ।
১৪৬। দ্বিরুক্ত শব্দ কাকে বলে? [৩৭ তম
বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ দ্বিরুক্ত অর্থ দুবার উক্ত হয়েছে
এমন।
বাংলা ভাষায় কোনো শব্দের পরপর
দুইবার
প্রয়োগকে দ্বিরুক্ত শব্দ বলে। যেমন: কন
কন,
ভন ভন, শন শন।
১৪৭। অব্যয় পদ কাকে বলে? [৩৭ তম
বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ যার ব্যয় বা পরিবর্তন হয় না,
অর্থায়
যা অপরিবর্তনীয় শব্দ তাই অব্যয়। যে পদ
সর্বদা অপরিবর্তনীয় থেকে কখনো
বাক্যের
শোভা বর্ধন করে, কখনো একাধিক
পদের,
বাক্যাংশের বা বাক্যের সয়যোগ বা
বিয়োগ
ঘটায়, তাকে অব্যয় পদ বলে। যেমন: আর,
আবার, ও, হ্যাঁ, না, যদি, যথা, আলবত, বহুত।
১৪৮। রোসাঙ্গ রাজসভা কোথায়
অবস্থিত
ছিলো? [৩৭ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ মিয়ানমার বা বার্মায়
অবস্থিত
ছিলো। রোসাঙ্গ রাজসভা হচ্ছে
আরাকান
রাজসভার সংস্কৃত নাম।
১৪৯। রোসাঙ্গ রাজসভা বাংলা
সাহিত্যের
জন্য গুরুত্বপূর্ণ কেন?[৩৭ তম বিসিএস
লিখিত]
উত্তরঃ রোসাঙ্গ রাজসভা বা
আরাকান
রাজসভায় বা সাহিত্য চর্চা হতো তাই
এটি
বাংলা সাহিত্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।
১৫০। অন্ধকার যুগের সাহিত্যের নিদর্শন
কী
কী? [৩৭ তম বিসিএস লিখিত]
উত্তরঃ অন্ধকার যুগের উল্লেখযোগ্য
সাহিত্য
হলো, রামাই পণ্ডিত রচিত শূন্যপুরাণ
এবং
হলায়ুধ মিত্র রচিত সেক শুভদয়া।
এক কথায় প্রকাশ বা বাক্য সংকোচন
১.অকালে পক্ব হয়েছে যা—অকালপক্ব।
২. অক্ষির অগোচরে—পরোক্ষ।
৩. অক্ষির সম্মুখে—প্রত্যক্ষ।
৪. অগ্রে গমন করে যে—অগ্রগামী।
৫. অতি দীর্ঘ নয়—নাতিদীর্ঘ।
৬. অতি শীতলও নয় অতি উষ্ণও নয়—
নাতিশীতোষ্ণ।
৭. অগ্রে জন্মগ্রহণ করেছে যে—অগ্রজ।
৮. অনেক কষ্টে ভিক্ষা পাওয়া যায়
যখন—দুর্ভিক্ষ।
৯. অনেকের মধ্যে একজন—অন্যতম।
১০. অনুসন্ধান করার ইচ্ছা— অনুসন্ধিৎসা।
১১. পশ্চাতে গমন করে যে—অনুগামী।
১২. অবশ্যই যা ঘটবে—অবশ্যম্ভাবী।
১৩. অভিজ্ঞতার অভাব যার— অনভিজ্ঞ।
১৪. অহংকার করে যে—অহংকারী।
১৫. অহংকার নেই এমন—নিরহংকার।
১৬. অল্প ব্যয় করে যে—মিতব্যয়ী।
১৭. আকাশ পথে যে যান ব্যবহার করা
যায়—নভোযান।
১৮. আচারে নিষ্ঠা আছে যার—
আচারনিষ্ঠ।
১৯. আদি থেকে অন্ত পর্যন্ত—আদ্যন্ত।
২০. আপনার বর্ণ লুকায় যে— বর্ণচোরা।
২১. আমিষের অভাব—নিরামিষ।
২২. আল্লাহর অস্তিত্বে বিশ্বাস আছে
যার— আস্তিক।
২৩. আল্লাহর অস্তিত্বে বিশ্বাস নেই
যার— নাস্তিক।
২৪. আকাশে ওড়ে যে—খেচর।
২৫. ইতিহাস জানেন যিনি—
ইতিহাসবেত্তা।
২৬. ইন্দ্রিয়কে জয় করেছে যে—
জিতেন্দ্রিয়।
২৭. ক্ষণকালের জন্য স্থায়ী—ক্ষণস্থা
য়ী।
২৮. উপায় নেই যার—নিরুপায়।
২৯. উপকার করেন যিনি—উপকারক।
৩০. উপকারীর উপকার স্বীকার করা—
কৃতজ্ঞতা
৩১. কল্পনা করা যায় না এমন—
অকল্পনীয়।
৩২. খাওয়ার ইচ্ছা—ক্ষুধা।
৩৩. গরুর ডাক—হাম্বা।
৩৪. চোখে যার লজ্জা নেই— চশমখোর।
৩৫. জন্ম থেকে আরম্ভ করে—আজন্ম।
৩৬. জানা আছে যা—জ্ঞাত।
৩৭. জানা নেই যা—অজ্ঞাত।
৩৮. জলে ও স্থলে চরে যে—উভচর।
৩৯. জায়া ও পতি—দম্পতি।
৪০. জীবন পর্যন্ত—আজীবন।
৪১. একই গুরুর শিষ্য—সতীর্থ।
৪২. একই বিষয়ে যার চিত্ত নিবিষ্ট—
একাগ্রচিত্ত।
৪৩. একই সময়ে—যুগপৎ।
৪৪. একই সময়ে বর্তমান— সমসাময়িক।
৪৫. একই মাতার উদরে জন্ম যাদের—
সহোদর।
৪৫. কোনো ভাবেই যা নিবারণ করা
যায় না—অনিবার্য।
৪৬. কণ্ঠ পর্যন্ত—আকণ্ঠ।
৪৭. কম কথা বলে যে—মিতভাষী।
৪৮. যার কোনো কিছুতে ভয় নেই—
অকুতোভয়।
৪৯. যার অন্য উপায় নেই—অনন্যোপায়।
৫০. যার কাজ করার শক্তি আছে—সক্ষম।
৫১. যার আকার নেই—নিরাকার।
৫২. যার পীড়া হয়েছে—পীড়িত।
৫৩. যার উপস্থিত বুদ্ধি আছে—প্রত্যুৎপন্
নমতি।
৫৪. যিনি অধিক ব্যয় করেন না—
মিতব্যয়ী।
৫৫. যিনি শিক্ষা দান করেন—শিক্ষক।
৫৬. যিনি বিশেষ জ্ঞান রাখেন—
বিশেষজ্ঞ।
৫৭. শুভক্ষণে জন্ম যার—ক্ষণজন্মা।
৫৮. শত্রুকে দমন করে যে—অরিন্দম।
৫৯. শৈশবকাল অবধি—আশৈশব।
৬০. শুকনো পাতার শব্দ—মর্মর।
৬১. সকলের জন্য প্রযোজ্য—সর্বজনীন।
৬২. সমুদ্র পর্যন্ত—আসমুদ্র।
৬৩. সমস্ত পৃথিবীর লোকের বন্দনাযোগ্য
—বিশ্ববন্দিত, বিশ্ববন্দ্য।
৬৪. সারা দুনিয়ায় খ্যাত—জগদ্বিখ্যাত।
৬৫. সাধনা করেন যিনি—সাধক।
৬৬. সিংহের ডাক—হুংকার।
৬৭. সোনার মতো দেখতে—সোনালি।
৬৮. হনন করার ইচ্ছা—জিঘাংসা।
৬৯. হরিণের চামড়া—অজিন।
৭০. হিত কামনা করে যে—হিতৈষী।
৭১. হঠাৎ রাগ করে যে—রগচটা।
৭২. হাতির ডাক—বৃংহণ/বৃংহিত।
৭৩. কষ্টে গমন করা যায় যেখানে—দুর্গম।
৭৪. কোথাও উঁচু কোথাও নিচু—বন্ধুর।
৭৫. কী করতে হবে তা বুঝতে না পারা
—কিংকর্তব্যবিমূঢ়
৭৬. কূলের সমীপে—উপকূল।
৭৭. কর্ম সম্পাদনে পরিশ্রমী—কর্মঠ।
৭৮. কল্পনা করা যায় না এমন—অকল্পনীয়।
৭৯. কোকিলের স্বর—কুহু।
৮০. খাবার যোগ্য—খাদ্য।
৮১. খ্যাতি আছে যার—খ্যাতিমান।
৮২. ঘোড়ার ডাক—হ্রেষা।
৮৩. চিরদিন মনে রাখার যোগ্য—
চিরস্মরণীয়।
৮৪. জানার ইচ্ছা—জিজ্ঞাসা।
৮৫. জয়ের জন্য যে উৎসব—জয়োৎসব।
৮৬. ডালের আগা—মগডাল।
৮৭. তুলনা হয় না এমন—অতুলনীয়।
৮৮. তিন রাস্তার মোড়—তেমাথা।
৮৯. তাল ঠিক নেই যার—বেতাল।
৯০. ত্রি (তিন) ফলের সমাহার—
ত্রিফলা।
৯১. দমন করা যায় না এমন—অদম্য।
৯২. দিনের মধ্যভাগ—মধ্যাহ্ন।
৯৩. দিনে যে একবার আহার করে—
একাহারী।
৯৪. দিবসের প্রথম ভাগ—পূর্বাহ্ন।
৯৫. দিবসের শেষ ভাগ—অপরাহ্ন।
৯৬. দূরে দেখে না যে—অদূরদর্শী।
৯৭. নষ্ট হয় যা—নশ্বর।
৯৮. নিশাকালে চরে বেড়ায় যে—
নিশাচর।
৯৯. নদীমাতা যার—নদীমাতৃক।
১০০. নূপুরের শব্দ—নিক্বণ।
১০১. নতুন কিছু তৈরি করা—উদ্ভাবন।
১০২. নিজের অধিকার—স্বাধিকার।
১০৩. নষ্ট হয়ে যাওয়া জিনিসের গাদা
—আবর্জনা।
১০৪. নিজের ইচ্ছায়—স্বেচ্ছায়।
১০৫. পরের অধীন—পরাধীন।
১০৬. পা থেকে মাথা পর্যন্ত—আপাদমস্
তক।
১০৭. পান করার ইচ্ছা—পিপাসা।
১০৮. প্রতিভা আছে যার—প্রতিভাবান।
১০৯. পরিহার করা যায় না এমন—
অপরিহার্য।
১১০. পান করার যোগ্য—পেয়।
১১১. প্রহরা দেয় যে—প্রহরী।
১১২. পাখির কলরব—কূজন।
১১৩. পান করার ইচ্ছা—পিপাসা।
১১৪. পা হতে মাথা পর্যন্ত—আপাদমস্তক।
১১৫. পেছনে সরে যাওয়া—পশ্চাদপসরণ।
১১৬. প্রাণ আছে যার—প্রাণী।
১১৭. ফল পাকলে যে গাছ মরে যায়—
ওষধি।
১১৮. বাঘের ডাক—গর্জন।
১১৯. বয়সে সবচেয়ে ছোট—কনিষ্ঠ।
১২০. বয়সে সবচেয়ে বড়—জ্যেষ্ঠ।
১২১. বেশি কথা বলে যে—বাচাল।
১২২. বরণ করার যোগ্য—বরণীয়।
১২৩. বিচার নেই এমন—অবিচার্য।
১২৪. ব্যাকরণ জানেন যিনি—বৈয়াকরণ।
১২৫. বীরদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ—বীরশ্রেষ্ঠ।
১২৬. বেঁচে আছে এমন—জীবিত।
১২৭. বিনা পয়সায়—মুফত/মাগনা।
১২৮. বিভিন্ন জাতি সম্পর্কীয়—বহুজা
তিক।
১২৯. বড় গ্রহকে ঘিরে যে ছোট গ্রহ
ঘোরে—উপগ্রহ।
১৩০. ভয় নেই যার—নির্ভীক।
১৩১. ভিক্ষার অভাব—দুর্ভিক্ষ।
১৩২. ভাষা সম্পর্কে যিনি বিশেষ
জ্ঞান রাখেন — ভাষাবিদ।
১৩৩. ভোজন করতে ইচ্ছুক—বুভুক্ষু।
১৩৪. ভাবা যায় না এমন—অভাবনীয়।
১৩৫. ভ্রমরের গান—গুঞ্জন।
১৩৬. মধুর ধ্বনি—মধুরা।
১৩৭. মরণ পর্যন্ত—আমরণ।
১৩৮. মৃতের মতো অবস্থা—মুমূর্ষু।
১৩৯. মেধা আছে যার—মেধাবী।
১৪০. ময়ূরের ডাক—কেকা।
১৪১. মায়ের মতো যে ভূমি—মাতৃভূমি।
১৪২. মিষ্টি কথা বলে যে—মিষ্টভাষী।
১৪৩. যে গাছ অন্য গাছের ওপর জন্মে—
পরগাছা।
১৪৪. যে নারীর পুত্রসন্তান হয়নি—
অপুত্রক।
১৪৫. যে পরিণাম বোঝে না—
অপরিণামদর্শী।
১৪৬. যে গাছে ফল ধরে, কিন্তু ফুল ধরে
না—বনস্পতি।
১৪৭. যে জামাই শ্বশুরবাড়ি থাকে—
ঘরজামাই।
১৪৮. যে মেয়ের বিয়ে হয়নি—অনূঢ়া।
১৪৯. যে পরে জন্মগ্রহণ করেছে—অনুজ।
১৫০. যে জমিতে দুবার ফসল হয়—দো-
ফসলা।
১৫১. যে সংবাদ বহন করে—সাংবাদিক।
১৫২. যে অত্যাচার করে—অত্যাচারী।
১৫৩. যে শব্দ বাধা পেয়ে ফিরে আসে
— প্রতিধ্বনি।
১৫৪. যে অন্যের অধীন নয়—স্বাধীন।
১৫৫. যে নৌকা চালায়—মাঝি।
১৫৬. যেখানে লোকজন বাস করে—
লোকালয়।
১৫৭. যে উপকারীর উপকার স্বীকার
করে —কৃতজ্ঞ।
১৫৮. যে হিংসা করে—হিংসক।
১৫৯. যে উপকারীর অপকার করে—কৃতঘ্ন।
১৬০. যে বিদেশে থাকে—প্রবাসী।
১৬১. যে আকাশে চরে—খেচর।
১৬২. যা মর্ম স্পর্শ করে—মর্মস্পর্শী।
১৬৩. যা সহজে লাভ করা যায়—সুলভ।
১৬৪. যা সহজে লাভ করা যায়—সুলভ।
১৬৫. যা সহজে ভেঙে যায়—ভঙ্গুর।
১৬৬. যা বালকের মধ্যেই সুলভ—বালসুলভ।
১৬৭. যা লাফিয়ে চলে—প্লবগ।
১৬৮. যা বুকে হাঁটে—সরীসৃপ।
১৬৯. যা বলার যোগ্য নয়—অকথ্য।
১৭০. যা চুষে খাওয়া যায়—চুষ্য।
১৭১. যা জলে জন্মে—জলজ।
১৭২. যা দেখা যাচ্ছে—দৃশ্যমান।
১৭৩. যা পূর্বে ছিল এখন নেই—ভূতপূর্ব।
১৭৪. যা একইভাবে চলে —গতানুগতিক।
১৭৫. যা বাক্যে প্রকাশ করা যায় না—
অবর্ণনীয়।
১৭৬. যা কষ্ট করে জয় করা যায়— দুর্জয়।
১৭৭. যা হবেই/হইবে—ভাবী।
১৭৮. যা সহজে দমন করা যায় না—
দুর্দমনীয়।
১৭৯. যা মাটি ভেদ করে ওঠে—উদ্ভিদ।
১৮০. যা ফুরায় না—অফুরান।
১৮১. যা জলে চরে—জলচর।
১৮২. যা কষ্টে লাভ করা যায়—দুর্লভ।
১৮৩. যা পূর্বে ঘটেনি—অভূতপূর্ব।
১৮৪. যার তল স্পর্শ করা যায় না—
অতলস্পর্শী।
১৮৫. যার বিশেষ খ্যাতি আছে—
বিখ্যাত।
১৮৬. যার নাম কেউ জানে না—
অজ্ঞাতনামা।
১৮৭. যার পত্নী গত হয়েছে—বিপত্মীক।
১৮৮. যার ভাতের অভাব—হাভাতে।
১৮৯. যার মমতা নেই—নির্মম।
১৯০. যার তুলনা হয় না—অতুলনীয়।
১৯১. যার সীমা নেই—অসীম।
১৯২. যার তুলনা নেই—অতুলনীয়।
১৯৩. যার অন্ত নেই—অন্তহীন।
১৯৪. যার শত্রু জন্মায়নি—অজাতশত্রু।
১৯৫. গরু রাখার স্থান — গোহাল।
১৯৬. ঢেউয়ের ধ্বনি — কল্লোল।
১৯৭. পুবের বাতাস — পুবালি।
১৯৮. গরু চরায় যে — রাখাল।
১৯৯. গাভির ডাক — হাম্বা।
২০০. বিশ্বের যে নবী — বিশ্বনবী।
২০১. বিদেশে থাকে যে — প্রবাসী।
২০২. পুতুল পূজা করে যে — পৌত্তলিক।
২০৩. রুপার মতো — রুপালি।
২০৪. মাটির তৈরি শিল্পকর্ম — মৃৎশিল্প।
২০৫. আঠা যুক্ত আছে যাতে — আঠালো।
২০৬. চালচলনের উৎকর্ষ — সভ্যতা।
২০৭. পুরুষানুক্রমিক — ঐতিহ্য।
২০৮. চিত্রকর্মের কাঠামো — নকশা।
২০৯. জীবন পর্যন্ত — আজীবন।
২১০. জনশূন্য স্থান — নির্জন।
২১১. যে বৃক্ষের ফুল না হলেও ফল হয় —
বনস্পতি।
২১২. মধু সংগ্রহকারী পতঙ্গবিশেষ —
মৌমাছি।
২১৩. জ্ঞানের সঙ্গে বিদ্যমান —
সজ্ঞান।
২১৪. আপনাকে ভুলে থাকে যে —
আপনভোলা।
২১৫. বিলম্বে নয় এমন — অবিলম্বে।
২১৬. স্থির নয় এমন — অস্থির।
২১৭. ফুল হতে জাত — ফুলেল।
২১৮. আলাপ করতে তৎপর — আলাপী।
২১৯. আলোচনার বিষয়বস্তু — আলোচ্য।
২২০. মুক্তি কামনা করে যে —
মুক্তিকামী।

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply