তোমরা একে অপরের গোপনীয় বিষয় সন্ধান করো না৷ –49:12

— পবিত্র কোরআন

তুমি বললে তুমার জন্য থেকেই যেতাম

লেখক: সৈয়দ মোঃ সাকিব আহমদ 

তুমি বললে,তুমার জন্য এভাবে জেগে থাকতে পারতাম শত নিযুথ রজনী,
তুমি বললে,তুমার জন্য কাটিয়ে দিতাম
লক্ষ তিক্ত জনম।
তুমি বললে,তুমার জন্য আটকে দিতে পারতাম মহাসমুদ্রের ঢেউ,
ঘুরিয়ে দিতে পারতাম
সুপ্ত আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখ।
তুমি বললে,তুমার জন্য অশ্রুতে ভাসিয়ে দিতে পারতাম এক সাহারা,
ভিজিয়ে দিতে পারতাম
মরুভূমির প্রত্যেকটি ধূলিকণা।
তুমি বললে,তুমার জন্য বানিয়ে দিতে পারতাম এক পেয়ালা কবিতা,
বুনে দিতাম নকশিকাঁথার সুনিপুণ এক গল্প।
তুমি বললে,তুমার জন্য ছিনিয়ে আনতাম
এক আকাশ সুখ,
জুড়ে দিতে পারতাম ভাঙা শতেক স্বপ্ন।
তুমি বললে,ছুঁয়ে দিতে পারতাম
অমাবস্যার কালো চাঁদ,
তুমি বললে,তুমার হাতে বেধে নিতাম
আমার দুটি হাত।
তুমি বললে,তুমার জন্য পাখি হয়ে
কুড়িয়ে আনতাম এক পশলা খুশি,
তুমার নামে নিঃশ্বাস নিতাম,
লাল কৃষ্ণচূড়ার প্রতি রন্ধ্রে রন্ধ্রে,
তুমি বললে।
তুমার জন্য কিলিমাঞ্জারোকে নত করতাম পৃথিবীর বুকে
তুমি বললে,গোটা মহাবিশ্বটাকে হাসাতাম
তুমার হাসির সুরে।
তুমি বললে,তুমার জন্য হয়ে যেতে পারতাম
ভয়ংকর সাইক্লোন,
আমাজনকেও গুড়িয়ে দিতাম এক ইশারায়।
তুমি বললে,ভাঙা পথ্যের টুকরো দিয়েও
সারিয়ে দিতে পারতাম বুকে জমা ক্যান্সার,
তুমার জন্য কার্তিককেও বানিয়ে দিতাম
তুমার প্রিয় বর্ষার আষাঢ়।
তুমি বললে,তুমার চোখের কাজল হয়ে
লেপ্টে থাকতে পারতাম
ঐদুটো কালো সমদ্রে,
তুমার জন্য ছন্দ মিলিয়ে দিতাম,
পুরনো সব কবিতার লাইনে লাইনে।
তুমি বললে,কখনোবা আকাশ হয়ে
রংধনুতে মাখিয়ে দিতে পারতাম
তুমার উঠোন,
তুমি বললে,বর্ষার প্লাবনে
মিলিয়ে দিতে পারতাম সকল শোকসংবাদ।
তুমি বললে,আমার শহরের বুক থেকে
মুছে ফেলতে পারতাম তুমার নামের
অগুনিত হারানোর বিজ্ঞপ্তির সাইনবোর্ড।
তুমি বললে,এভাবে হারিয়ে যেতে নাও পারতাম,
তুমার জন্য থেকে যেতে পারতাম জীবনভর।
তুমি বললে,তুমার জন্য আমি হতাম,
উল্টিয়ে দিতাম কপালের যত
না পাওয়ার লিখন,
তুমি বললে তুমার জন্য থেকেই যেতাম।

উৎসর্গ ;- ইভু,তোমাকে!

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply