মিথ্যা শুনিনি ভাই, এই হৃদয়ের চেয়ে বড় কোনো মন্দির-কাবা নাই।

— কাজী নজরুল ইসলাম, কাজী নজরুল ইসলাম

টিকা বিভাজনে মতবিরোধ, সাম‍্য চেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ রাজ‍্যের

সেরাম ইন্সটিটিউটের কর্ণধার আদর পুনাওয়ালা জানিয়েছেন সমস্ত কিছু ঠিক থাকলে ডিসেম্বরেই আসতে চলেছে করোনা টিকা আর তাতেই দেখা গেছে সমস্যা। কেন্দ্র সরকার জানিয়েছিল করোনার টিকা প্রথমে পাবে স্বাস্থ‍্যকর্মীরা।

বিহারের নির্বাচনী সভায় যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন প্রত‍্যেক ভারতবাসীকে করোনা ভ‍্যাকসিনের টিকা দেওয়া হবে, কিন্তু তার আগে সবার প্রথমে পাবেন স্বাস্থ‍্যকর্মীরা, আর সেই অনুযায়ী তালিকা প্রস্তুত করতে হবে রাজ‍্যকেও, কিন্তু এই তালিকায় প্রথমসারিতে নাম থাকবেনা পুলিশ ও প্রশাসন কর্মীদের, যদিও তাঁরা ও জীবনের ঝুঁকি মাথায় রেখে সাতমাস ধরে করোনা মোকাবিলার জন্য সমানভাবে কাজ করেছেন।
কেন্দ্রের নির্দেশ অনুযায়ী যাঁরা করোনা মোকাবিলায় সরাসরি যুক্ত অর্থাৎ ডাক্তার, নার্স, টেকনিশিয়ান, স্বাস্থ্যকর্মী, ও হাসপাতালের বিভিন্ন কাজে যুক্ত থাকা কর্মীরায় প্রথম পর্বে টিকা পাবে।কিন্তু পুলিশ ও প্রশাসনের আধিকারিকরা কেন অগ্রাধিকার পায়নি? প্রশ্ন তৈরি হচ্ছে এখানেই, এমনকি ক্ষোভ ও তৈরি হচ্ছে।
অথচ গত সাতমাসে সামনের সারিতে থেকে সরাসরি কাজ করার জন্য প্রাণ হারিয়েছেন এমন তালিকায় চিকিৎসক ছাড়াও রয়েছেন পুলিশ ও সাধারণ প্রশাসনিক আধিকারিকরা।
লকডাউন থাকাকালীন পরিযায়ী শ্রমিকরাও যথেষ্ট দূর্দশা ভোগ করেছে। কলকারখানার শ্রমিক, কৃষক থেকে গরীব মানুষ সকলেই প্রথম সারিতে কাজ করেছেন কিন্তু কেন্দ্রের কাছে ব্রাত্য বলে আজ অভিযোগ বিরোধীদের।
তাই পর্যায়ক্রমে চিকিৎসক, চিকিৎসক কর্মীদের পাশাপাশি করোনা ব‍্যবস্থাপনার কর্মী আধিকারিকদের ও সামনের সারিতে থাকা যোদ্ধা হিসেবেই বিবেচনা করছে রাজ‍্য প্রশাসন।
সরকারী স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের অনেকের ধারণা টিকা প্রদানের পরবর্তী ধাপ থেকে পর্যায়ক্রমে তালিকাভুক্ত করার সুযোগ হয়তো দেবে কেন্দ্র।

Writer: Rickta Mukherjee

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply