সত্যিকারভাবে ক্ষমতা নিয়ে বাঁচতে হলে নির্ভয়ে বাঁচো।

— গৌতম বুদ্ধ

টাকা

অনেক আগের কথা।আমাদের এক বিশাল বড় তামাক পাতার আরদ ছিল।আমার বড় বাবার আমলে বড় বাবা মানে দাদার বাবা কে বলা হয়।আমরা অনেক সম্পদশালী ছিলাম আমাদের কোন টাকা পয়সার অভাব ছিল না।খুব জমজমাট ব্যবসা হত এবং আমাদের বাসা বাড়িও ছিল অনেক বড় প্রায় ৩/৪ একরের মত এলাকার সবথেকে সম্পদশালী এবং সভথেকে বড় বাড়ি ছিল আমাদের।আমার জন্ম তখন হয়নি। আমি বাবা এবং দাদা-দাদির মুখে শুনেছি। আমার তখন খুব আনন্দ হতো আমি বলতাম ইশশ! আমি যদি থাকতাম কতই না মজা হত। আমি আবার খাবার রসিক খাবার-দাবার অনেক ভালোবাসি। আমাদের পরিবার অনেক বড় ছিল। সবাই একসাথে গল্পগুচ্ছ করত আড্ডা দিত। আস্তে আস্তে আমার বাবার বিয়ে হয় ১৯৯৩ সালের ৩ মার্চ।আমার বাবার বিয়ে হয় অনেক ধুমধাম করে বড় ছেলের বিয়ে বলে কথা। আমার বাবার বিয়ে হয় ভালোবাসা করে। তিনি মাকে খুব ভালোবাসতেন। আমার মাও বাবাকে খুব ভালোবাসতেন। আমাদের যে তামাকের ব্যবসা ছিল আমার বড় বাবা মারা যাওয়ার পর দাদা ব্যবসার হাল ধরলেন। শুধু দাদা নয় বাবা ছিলেন।আমাদের বাপ চাচা চারজন ও ফুপুএকজন। চাচাদের ব্যবসার প্রতি তেমন আকর্ষণ ছিল না। আমার তিন নাম্বার চাচার কোর্টে কম্পিউটারের দোকান আছে। অনেক ভালোই চলছিল আমাদের ব্যবসা সবাই খুব সুখ-শান্তিতে চলাফেরা করতেন। তারপর আস্তে আস্তে আমার বড় ভাইয়ের জন্ম হয় বংশের বড় নাতি।১৯৯৩ সালের ৩১শে ডিসেম্বর। তখন পরিবারের সবাই খুব খুশি বিশেষ করে আমার দাদা দাদি খুব খুশি হন। কারণ বংশের বড় নাতি বলে কথা। তখন আমাদের ব্যবসা খুব ভালোই চলছিল তারপর আস্তে আস্তে আমাদের ব্যবসার পতন হওয়া শুরু হয় আমার বাবা ও দাদা তা বুঝতে পারেননি তাদের ব্যবসা যে নষ্ট হচ্ছে। তারপর জন্ম হয় আমার মেজো ভাইর ১৯৯৯ সালের ২৬শে জুলাই। তখন ব্যবসা বেশ ভাল চল ছিল না।আমার জন্য হয় ২০০২ সালের ১৭ই জুন।আমি দুনিয়াতে আসি তা আমার বাবা-মা চান নি আমি যখন পেটে ছিলাম তখন মা কিছু অসুধ খেয়েছিলেন আমাকে নষ্ট করার জন্য।করারই কথা ব্যবসা প্রায় ধ্বংস হয়ে গেছিল। আমাকে নষ্ট করার কারণ ছিল টাকা নেই দুনিয়াতে এনে কি খাওয়াবে। তবুও আল্লাহর রহমতে আমি দুনিয়াতে আশি।আমার মা আমাকে দেখছিলেন আমি ঠিক আছি কিনা। তারপর কি তারপর শেষ ব্যবসা-বাণিজ্যের কোন অস্তিত্ব ছিল না। তখন পরিবারের অনেক অসুবিধা দেখা দেয় টাকা পয়সার অভাবে।…….

ভাই আমার গল্প অনেক বড় আপাতত এতোটুকু প্রকাশ করেন।

লেখকঃআরমান রসুল পলক

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

Leave a Reply